মুক্তিযোদ্ধার সন্তানের উপর প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসী হামলা। মামলা। আসামীরা পলাতক।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ১৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মুন্সি কামরুজ্জামানের বিরুদ্ধে স্থানীয় এক ব্যবসায়ীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগে কাউন্সিলরসহ ৯ জনের নাম উল্লেখ করে রমনা মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা নং ৩৬ তারিখ: ২১-০২-১৯।
মামলার এজাহার অনুযায়ী, মারধরে আহত ব্যক্তির নাম নজরুল ইসলাম নঈম (৬১)। তিনি মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম আঞ্চলিক সংগঠক মরহুম মহসিন খানের ছেলে । গত বুধবার রাতে সিদ্ধেশ্বরী কালী মন্দিরের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এজাহারে বলা হয়, নজরুল ইসলাম বুধবার রাতে পল্টন থেকে সিদ্ধেশ্বরী আসছিলেন। রাত সাড়ে নয়টার দিকে কালীমন্দিরের সামনে ওঁত পেতে থাকা মুন্সি কামরুজ্জামান (কাজল) ও তার সহযোগীরা নজরুল ইসলামকে শর্টগানের বাট ও রড দিয়ে এলোপাতারি মারধর করেন। সন্ত্রাসীরা মৃত মনে করে চলে যায়। পরে তাঁকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। তার মাথায় ১২টি ও নাকে ৯টি সেলাই দিতে হয়েছে। উল্লেখ্য, এর আগেও মুন্সি কামরুজ্জামানের বিরুদ্ধে এলাকার সাধারণ মানুষকে এ ধরনের নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছিল।
আহত নজরুল ইসলাম রমনা থানা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি। তিনি দাবী করেছেন, সন্ত্রাসীরা তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে-ই হামলা করেছিলো।রমনা মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জহিরুল ইসলাম মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ব্যাপারে পুলিশ তদন্ত করছে।